হিন্দু সম্প্রদায়ের মা-বোনদের নমস্কার দিলেন কাউন্সিলর প্রার্থী দিদার খন্দকার

সান নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টিফোর ডটকম:

নির্বাচনী প্রথম শোডাউনেই বাজিমাত করলেন নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশনের ১৪নং ওয়ার্ডের কাউন্সিলর প্রার্থী রোটারীয়ান দিদার খন্দকার। এই ওয়ার্ডটি হিন্দু অধ্যষিত এলাকা হিসেবে পরিচিত। হিন্দু সম্প্রদায়ের যে কোনো প্রয়োজনে সবার আগে এগিয়ে যান দিদার খন্দকার। তার শোডাউন থেকেও তিনি হিন্দু সম্প্রদায়ের মা-বোনদের প্রতি নমস্কার জানান তিনি।

IMG 20211203 203518

৩ ডিসেম্বর শুক্রবার বিকেলে ১৪নং ওয়ার্ডের প্রতিটি এলাকায় কয়েক হাজার জনতা নিয়ে বিশাল শোডাউন করেছেন তিনি। হাজার হাজার জনতা ওই শোডাউনে ঢাকঢোল পিটিয়ে বাদ্যবাজনা বাঁজিয়ে ও মাইকিংয়ের মাধ্যমে দিদার খন্দকারের সালাম-নমস্কার ঘরে ঘরে পৌছে দেয়া হয়।

সিটি কর্পোরেশনের ১৪নং ওয়ার্ডের কয়েক হাজার জনতাকে নিয়ে শোডাউনে নামেন দিদার খন্দকার। শোডাউনটি দেওভোগ পানির টাংকি, বোয়ালিয়া খাল, গোয়ালপাড়া, নন্দিপাড়া, পালপাড়া, দেওভোগ আখড়া, জিউসপুকুরপাড়, ভুঁইয়ারবাগ পরিদর্শন করা হয়।

শোডাউনে দিদার খন্দকারের সঙ্গে ছিলেন- সমাজ সেবক আজিজ খন্দকার, সামসুল ইসলাম, মোহাম্মদ হানিফ, খোকা খন্দকার, মাহবুব হোসেন, বরকত উল্লাহ, মনির মল্লিক, সানি, রিপন, বিপ্লব কুন্ডু, রোটারিয়ান পাষ্ট প্রেসিডেন্ট ইব্রাহিম রাজু, রোটারিয়ান চার্টার প্রেসিডেন্ট কামরুল হাসান, মানিক, সেলিম, আনোয়ার, মকবুল, শিবু দাস, নারায়ন, সজীব প্রমুখ।

শোডাউনে কাউন্সিলর প্রার্থী দিদার খন্দকার সকলকে সালাম ও নমস্কার জানিয়ে নির্বাচনী প্রচারণা শুরু করেন। শোডাউন শেষে তিনি সংবাদকর্মীদের কাছে বলেন, আশা করছি সিটি কর্পোরেশন নির্বাচন সুষ্ঠু অবাধ নিরপেক্ষ হবে। সেই প্রত্যাশা নিয়ে জনগণের সেবায় নিজেকে বিলিয়ে দেয়ার লক্ষ্যেই নির্বাচনী অংশগ্রহণ করতে চাই। আমি কাউন্সিলর নির্বাচিত হলে সিটি কর্পোরেশনের ১৪নং ওয়ার্ড একটি মডেল ওয়ার্ড। সকলের দোয়া কামনা করছি। সকলের ভালবাসা নিয়ে নির্বাচনে কামিয়াব হতে চাই। নির্বাচনে ফলাফল যাই হোক, অতীতের মত সব সময় ১৪নং ওয়ার্ডবাসীর পাশে থাকবো ইনশাহআল্লাহ।