গডফাদার শামীম ওসমান ও সেলিম ওসমানের প্রার্থী তৈমুর আলম: আইভী

সান নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টিফোর ডটকম:

নারায়ণগঞ্জ সিটি কর্পোরেশন নির্বাচনে এবার উত্তপ্ত বাক্য বিনিময় শুরু করেছেন প্রার্থী, আওয়ামী লীগ, জাতীয় পার্টি এবং বিএনপি’র শীর্ষ নেতারা। নির্বাচনের শুরুতেই মহানগর বিএনপি’র সহ-সভাপতি আতাউর রহমান মুকুল ঘোষণা দিয়েছিলেন- বিএনপির যেসব নেতাকর্মী তৈমুর আলম খন্দকারের পক্ষে কাজ করবেন না, তাদেরকে মহানগরী থেকে বিতাড়িত করা হবে।

সেই বক্তব্যের নানা সমালোচনার শেষে নির্বাচনে প্রচারণার তুমুল পর্যায়ে আওয়ামী লীগের নৌকা প্রতীকের মেয়র প্রার্থী ডাক্তার সেলিনা হায়াৎ আইভী নারায়ণগঞ্জের প্রভাবশালী এমপি একেএম শামীম ওসমানকে ‘গডফাদার শামীম ওসমান’ হিসেবে মন্তব্য করেছেন। তার এমন মন্তব্য নারায়ণগঞ্জে টক অফ দা টাউনে পরিণত হয়েছে।

নারায়ণগঞ্জের কথিত ‘গডফাদার’ শামীম ওসমানের লোকজন তার (তৈমূর আলম খন্দকার) পাশে আছে। তিনি বিএনপির প্রার্থী না, সেলিম ওসমান ও শামীম ওসমানের প্রার্থী বলে মন্তব্য করেছেন নারায়ণগঞ্জ সিটি করপোরেশন নির্বাচনে আওয়ামী লীগের মনোনীত মেয়র প্রার্থী ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী।

শনিবার (৮ জানুয়ারি) দুপুরে বন্দরে নির্বাচনী প্রচারণার সময় সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে স্বতন্ত্র প্রার্থী অ্যাডভোকেট তৈমূর আলম খন্দকার প্রসঙ্গে তিনি একথা বলেন।

ডা. সেলিনা হায়াৎ আইভী বলেন, যেহেতু নির্বাচনটা দলীয় প্রতীকে হচ্ছে, তিনি বিএনপির প্রার্থী হলে দলের প্রতীক পেতেন। তিনি যেহেতু ধানের শীষ প্রতীক পাননি সেহেতু তিনি বিএনপির প্রার্থী নন। তার চারপাশে বিএনপির লোকজন আছে। গতকাল শুক্রবার জাতীয় পার্টির লোকজনও তার সঙ্গে যোগ দিয়েছে।

তিনি আরও বলেন, নারায়ণগঞ্জে যত জল্পনা কল্পনাই হোক না কেন দিন শেষে ভোট শান্তিতেই হয়। আমি আশা করি ১৬ তারিখ এখানে শান্তিপূর্ণ ভোট হবে। মানুষ আমাকে ভোট দেবে এবং আমি জয়যুক্ত হবো।

আইভী বলেন, জাতীয় নির্বাচনের মুডে আমি নেই। স্থানীয় সরকার নির্বাচনের মুডে আছি। স্থানীয় সরকার নির্বাচন নিয়েই কথা বলতে চাই। আমার অনেক কাজ চলমান। আমি চাই আমার চলমান কাজগুলো শেষ হোক।