গণতন্ত্রের জন্য লড়াই করতে গিয়ে বেগম খালেদা জিয়া গৃহবন্দি: সাগর প্রধান

সান নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টিফোর ডটকম:

৭ নভেম্বর বিপ্লব ও সংহতি দিবস উপলক্ষে নারায়ণগঞ্জ মহানগর যুবদলের সাবেক সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক সাগর প্রধানের উদ্যোগে আলোচনা সভা করেছে নারায়ণগঞ্জ মহানগর যুবদল। ৭ নভেম্বর রবিবার বিকেলে নারায়ণগঞ্জ ক্লাব মার্কেটের তৃতীয় তলায় এই আলোচনা সভার আয়োজন করা হয়।

নারায়ণগঞ্জ মহানগর যুবদলের সাবেক সিনিয়র যুগ্ম সম্পাদক সাগর প্রধানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত আলোচনা সভায় প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন নারায়ণগঞ্জ মহানগর বিএনপির সিনিয়র সহ-সভাপতি অ্যাডভোকেট সাখাওয়াত হোসেন খান। বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন মহানগর বিএনপির সহ-সভাপতি এবং মহানগর কৃষক দলের আহ্বায়ক মনির হোসেন খান।

IMG 20211107 210408

প্রধান অতিথির বক্তব্যে অ্যাডভোকেট সাখাওয়াত হোসেন খান ৭ নভেম্বর বিপ্লব ও সংহতি দিবসের তাৎপর্য তুলে ধরে সকলকে শহীদ জিয়ার আদর্শে উজ্জীবিত হওয়ার আহ্বান জানান। সেইসাথে দেশের মানুষের ভোটের অধিকার ফিরিয়ে আনতে হলে রাজপথে আন্দোলন সংগ্রামে অংশ নেওয়ার জন্য সকলকে প্রস্তুত থাকার নির্দেশ দেন।

সভাপতির বক্তব্যে যুবদল নেতা সাগর প্রধান বলেন, ১৯৭১ সালে মহান মুক্তিযুদ্ধে যে চারটি মূলনীতির উপরে এ দেশ স্বাধীন হয়েছিলো, স্বাধীনতা পরবর্তী সময়ে তৎকালীন স্বৈরশাসক সেসব মূলনীতি ভুলে গিয়ে একদলীয় বাকশালী শাসন ব্যবস্থা কায়েম করেছিলো। দেশের সকল রাজনৈতিক দল নিষিদ্ধ করা হয়েছিল। দেশে চরম এক অরাজক পরিস্থিতি সৃষ্টি হয়েছিল। ১৯৭৫ সালের ৭ নভেম্বর দেশে সিপাহী-জনতা ঐক্যবদ্ধ হয়ে এক বিপ্লবের মাধ্যমে মেজর জিয়াউর রহমানকে জেলখানা থেকে মুক্ত করে দেশে গণতন্ত্র পুনঃপ্রতিষ্ঠা দায়িত্ব দিয়েছিলেন। বিএনপির প্রতিষ্ঠাতা জিয়াউর রহমান সে সময়ে দেশের মানুষের হারানোর গণতন্ত্র ফিরিয়ে দিয়েছিলেন।

তিনি আরও বলেন, স্বাধীনতা পরবর্তী সময়ের মতো বর্তমানেও দেশে মানুষের মৌলিক অধিকার হরণ করা হয়েছে। দেশে এখন চরম অরাজক পরিস্থিতি বিরাজ করছে। দ্রব্যমূল্য বাড়তে বাড়তে মানুষের ক্রয়সীমার বাইরে চলে গেছে। গত কিছুদিন আগে কেরোসিন এবং ডিজেলের দাম বাড়িয়ে দেয়া হয়েছে। দেশে এখন দুর্ভিক্ষের প্রতিধ্বনি শোনা যাচ্ছে। গণতন্ত্রের জন্য লড়াই করতে গিয়ে বিএনপি’র চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া আজ গৃহবন্দি। বিএনপি’র ভারপ্রাপ্ত চেয়ারম্যান আগামী রাষ্ট্রনায়ক তারেক রহমান নির্বাসনে আছেন। তাই দেশে গণতন্ত্র ফিরিয়ে আনতে হলে বেগম খালেদা জিয়াকে মুক্ত করতে হবে এবং তারুণ্যের অহংকার তারেক রহমানকে দেশে ফিরিয়ে এনে জাতীয়তাবাদী শক্তি প্রতিষ্ঠা করতে হবে। আর সেই লক্ষ্যে রাজপথে আন্দোলন সংগ্রামের কোন বিকল্প নেই। আন্দোলন সংগ্রামের মাধ্যমেই এদেশে গণতন্ত্র ফিরিয়ে এনে মানুষের মৌলিক অধিকার প্রতিষ্ঠা করতে হবে। সে লড়াইয়ে সকলকে অংশ নেয়ার আহ্বান জানাচ্ছি। আজ বিপ্লব ও সংহতি দিবসে এই হোক আমাদের দীপ্ত শপথ।

আলোচনা সভায় আরো উপস্থিত ছিলেন ২৩ নং ওয়ার্ড বিএনপি’র সাধারণ সম্পাদক কাজী খোকন, মহানগর তাঁতী দলের সাধারণ সম্পাদক ইকবাল হোসেন, যুবদল নেতা মঞ্জুরুল আলম মুসা, লিংকন খান, নুরুজ্জামান, সম্রাট হাসান সুজন, মনজুর হোসেন, কাঞ্চন আহমেদ, জসিম উদ্দিন আলী রিকসন, এইচএম হোসেন, জসিম উদ্দিন, রিয়াজ উদ্দিন, রাজু আহমেদ, আব্দুল্লাহ, সাখাওয়াত ইসলাম জ্যাকি, জাকির হোসেন, হারুন, ডিকে মাহি, মীর রাজিবসহ বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী।