সোনারগাঁয়ে ক্যান্টাকি কারখানার বিষাক্ত পানিতে পরিবেশ দূষনের দায়ে জরিমানা

সান নারায়ণগঞ্জ টুয়েন্টিফোর ডটকম:

নারায়ণগঞ্জের সোনারগাঁও উপজেলার মোগরাপাড়া ইউনিয়নের একটি পোশাক তৈরির কারখানার বিষাক্ত পানিতে পরিবেশ দুষনের দায়ে ভ্রাম্যমান আদালত বসিয়ে ৫০ হাজার টাকা অর্থদন্ড দিয়েছেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার আতিকুল ইসলাম।

মোগরাপাড়া ইউনিয়নের ছোট শিলমান্দি এলাকায় অবস্থিত ক্যান্টাকি নামের ওই পোশাক তৈরী কারখানার ডাইংয়ের দূষিত পানিতে নিম্নাঞ্চল প্লাবিত হয়ে মারাত্মক পরিবেশ দূষনে পড়েছে স্থানীয় ফুলবাড়িয়াসহ কয়েকটি গ্রামের মানুষ।

এছাড়া ডাইং দূষিত পানি খাল দিয়ে প্রবাহিত হয়ে মোগরাপাড়া ভেতর দিয়ে প্রবাহিত খাল দিয় মারীখালি নদ দিয়ে ব্রক্ষ্মপুত্র ও মেঘনা নদীতে গিয়ে পড়ে নদীর পানি দুষিত হচ্ছে এতে মারাত্মক ঝুঁকিতে পড়েছে মিঠা পানির মাছ ও জীব বৈচিত্র্য।

ক্যান্টাকির দূষিত পানির কারনে ওই এলাকায় দেখা দিয়েছে পানিবাহিত বিভিন্ন রোগ। এ ঘটনায় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার কাছে লিখিত অভিযোগ করেছেন এলাকাবাসী। এছাড়া ক্যান্টাকির দুষিত পানি থেকে রক্ষা পেতে বিকেলে বিক্ষোভ করেন এলাকাবাসী।

IMG 20210616 194727

ফুলবাড়িয়া ও ছোট শিলমান্দি এলাকার লোকজন জানান, ক্যান্টাকি পোশাক কারখানা তৈরী করার সময় এখানে দূষিত পানি ফেলার জন্য পাইপ বসানোর চেষ্টা করেছিল কিন্তু স্থানীয় এলাকাবাসী ও প্রশাসনের হস্তক্ষেপের কারণে তারা পিছু হটে। পরে স্থানীয় জনপ্রতিনিধি ও তাদের লোকের মাধ্যমে মেঘনা ইকোনোমিক জোনের সাথে মিলে পাইপ স্থাপন করে। কিন্তু মেঘনা ইকোনোমিজোন তাদের ব্যবহৃত ভাল পানি ফেললেও ক্যান্টাকি সেই পাইপে দুষিত গন্ধযুক্ত রঙ্গিন পানি ফেলে পরিবেশের মারাত্মক ক্ষতি করছে। সেই দুষিত পানি খাল ও নিম্মাঞ্চলে গিয়ে পানিবাহিত বিভিন্ন রোগ ছড়াচ্ছে।

এছাড়া নিম্মাঞ্চল ও ফুলবাড়িয়া খালের মাধ্যমে সে পানি মারীখালি নদ দিয়ে মেঘনা ও ব্রক্ষ্মপুত্র খালে গিয়ে পড়ে দুই নদীর পানিকেও মারাত্মক ক্ষতি করেছে। এ ব্যাপারে তারা ক্যান্টাকির বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেয়ার জন্য স্থানীয় প্রশাসনের কাছে লিখিত আবেদন করেন।

এ বিষয়ে ১৬ জুন বুধবার বিকেলে সোনারগাঁ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সরেজমিনে গিয়ে দূষিত পানি পরিদর্শন করে ক্যান্টাকিকে আর্থিক জরিমানাসহ ইটিপি প্লান ব্যবহার করে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেয়ার আশ্বাস দিলে এলাকাবাসী শান্ত হোন।

এ ব্যাপারে সোনারগাঁ উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা আতিকুল ইসলাম জানান, দুষিত পানির অভিযোগ পেয়ে সরেজমিনে গিয়ে ক্যান্টাকি কারখানাকে ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করা হয়েছে। দুষিত পানি যাতে খালে বিলে না আসে সেজন্য ইটিপি প্লান ব্যবহার করার জন্য নির্দেশ প্রদান করা হয়েছে।